দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর চলে এলো অ্যানড্রয়েড ১০! দেখে নিন যা যা থাকছে এবং যেভাবে ইন্সটল করবেন।

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর সামনে এলো অ্যানড্রয়েড ১০-এর আপডেট। প্রাথমিক পর্যায়ে গুগলের একাধিক পিক্সেল মডেলের ফোনে পৌঁছে যাবে অ্যানড্রয়েড ১০।

আপডেট ফাইল ডাউনলোডারের মাধ্যমে নিজেদের ফোনে অ্যানড্রয়েড ১০ ইনস্টল করে নিতে পারবেন পিক্সেল ব্যবহারকারীরা।

চলতি বছরের শুরু থেকেই অ্যানড্রয়েড পাই ৯.০-এর পরবর্তী আপডেটের বিষয়ে শোনা যাচ্ছিল। অ্যানড্রয়েড ১০ নাকি অ্যানড্রয়েড কিউ কী নাম রাখা হবে তাই নিয়েও চলছিল আলোচনা।

তবে গুগলের পক্ষ জানানো হয়, অ্যান্ড্রয়েড ১০ নামকেই প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। এতো দিন অ্যানড্রয়েড বিভিন্ন ভার্সনের নাম রাখা হত বিভিন্ন ডেজার্ট বা মিষ্টির নামে। কিন্তু এ বার প্রথম কোনও মিষ্টির নাম থাকছে না গুগলের অ্যান্ড্রয়েডে।

আপনার ফোনে আপডেট এসে পৌঁছেছে কিনা দেখবেন কী ভাবে? ফোনের সেটিংস-এ যান। সেখানে সিস্টেম অপশানে টাচ করুন। সিস্টেম আপডেটস অপশনে যান। আপডেট এসেছে কিনা দেখে নিন।

আপডেট এসে থাকলে সেটি ডাউনলোড করুন। তবে তার আগে পর্যাপ্ত ডেটা ও চার্জ আছে কিনা নিশ্চিত হয়ে নিন।

এই পদ্ধতিতে আপডেটের ফলে আপনার ফোনের কোন ডেটা নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা নেই। তবে আপডেট করার আগে নিরাপত্তার জন্য ব্যাকআপ নিয়ে নিন।

আপাতত গুগলের নিজস্ব স্মার্টফোন পিক্সেলে-এ আসছে আপডেট। তবে সব ফোনে কবে এই আপডেট পৌঁছবে তা এখনও জানা যায়নি।

যা যা থাকছে এই নতুন ফিচারে-

ডার্ক মোড: 

এই ফিচারটি প্রথমে পাবলিক বেটা ভার্সনে রিলিজ করা হয়েছিল। পরে গুগলের আইও ডেভেলপার সম্মেলনে ফিচার নিশ্চিত করা হয়। সেটিংসে ব্যাটারি ট্যাব থেকে ডার্ক থিম চালু করা যাবে। গুগল গত কয়েক মাসে তাদের কিছু অ্যাপে এ মোড যুক্ত করেছে।

লোকেশন: 

অ্যানড্রয়েড ১০ সংস্করণে প্রাইভেসি সুরক্ষার বিষয়কে গুরুত্ব দিচ্ছে গুগল। অ্যাপে লোকেশন অ্যাকসেস যাতে ব্যবহারকারীরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে সে বিষয়টি যুক্ত করা হচ্ছে। এ ছাড়া লোকেশন সেবা চালু বা বন্ধ করার সুবিধার পাশাপাশি কোনো অ্যাপে অনুমতি ছাড়া লোকেশন সেবা চালু হবে না, সেটাও নিশ্চিত করা হয়েছে।

ফাস্ট শেয়ার: 

অ্যানড্রয়েড ১০-এর সঙ্গে নতুন একটি ফিচার নিয়ে আসছে গুগল। এই ফিচারের সাহায্যে ইউজাররা খুব সহজেই ফাইল শেয়ার করতে পারবে। এই ফিচারে নাম ফাস্ট শেয়ার।

ব্যাটারি নির্দেশক:

 এই মুহূর্তে বাজারে যতো স্মার্টফোন রয়েছে তার প্রায় সবগুলোতেই কত শতাংশ চার্জ রয়েছে তা দেখায়। কিন্তু অ্যানড্রয়েড ১০-এ আপনি জানতে পারবেন আপনার ফোন কতক্ষণ চলবে।

বিভিন্ন রঙের থিম: 

ইউজার ইন্টারফেসে (ইউআই) পরিবর্তন আনার পাশাপাশি বিভিন্ন রঙের থিম ব্যবহার করার সুযোগ দিতে পারে অ্যানড্রয়েড ১০।

ওয়াইফাই:

 ব্যবহারকারীকে প্রতিবার পাসওয়ার্ড টাইপ করতে হবে না। কিউআর কোড ব্যবহার করেই ওয়াই-ফাই ব্যবহার করা যাবে। এতে ওয়াই-ফাই সেবাদাতাকে বারবার পাসওয়ার্ড বলার প্রয়োজনও পড়বে না।

অডিও-ভিডিও ফরম্যাট: 

অ্যানড্রয়েড ১০-এ টেনে আরও বেশি ভিডিও কোডেক সমর্থন করবে। এতে ব্যবহারকারীরা তাঁদের মোবাইল ফোনে বিভিন্ন ধরনের ভিডিও ও অডিও শুনতে পারবেন।

ডেস্কটপ মোড:

 অ্যানড্রয়েড ১০-এ থাকবে বিশেষ ডেস্কটপ মোড। যা হ্যান্ডসেটকে সহজে ডেস্কটপের সঙ্গে যুক্ত করা যাবে। এতে কাজে আরও বেশি গতিশীলতা বাড়বে।

Author: Eileithyia Gabriel

আমি heilcat.com এর এডমিন। লাইফস্টাইল, স্বাস্থ্য, আন্তর্জাতিক, ফ্যাশন, নারী যে কোন বিষয়ে আমি লিখে থাকি। মেসেঞ্জারে আমাকে নক দিতে পারেন এখানে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *